বাংলাদেশ শ্রমজীবী সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগ ১৫ আগষ্টের জাতীয় শোক দিবস পালিত ও দোয়া মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত।

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

সোমবার (১৬ আগষ্ট) সকাল ১১ টায় বাংলাদেশ শ্রমজীবী সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে

১৫ আগস্টের-জাতীয়-শোক-দিবস সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালীর জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তার পরিবারের সকল শহীদদের ৪৬ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

গাজীপুর মহানগরের গাছা থানার বোর্ডবাজারের আইইউটি গেট সংলগ্নে ফকরুদ্দিন কমিউনিটি সেন্টারে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ গোটা পরিবারের জন্য দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেন বাংলাদেশ শ্রমজীবী সমন্বয় পরিষদ গাজীপুর জেলা।
এসম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিলো গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও গাজীপুর মহানগরের মেয়র আলহাজ্ব এড. মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মোঃ কফিল উদ্দিন সভাপতি বাংলাদেশ শ্রমজীবী সমন্বয় পরিষদ ও একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন। অনুষ্ঠান সঞ্চলনা করেন মোঃ আসাদুল ইসলাম ( মাসুদ) সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ শ্রমজীবী সমন্বয় পরিষদ।
দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মোঃ তমিজ উদদীন (তনু) সিনিয়র সহ-সভাপতি বাংলাদেশ শ্রমজীবী সমন্বয় পরিষদ ও সভাপতি বাংলাদেশ তৃণমূল গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশন গাজীপুর জেলা, সৈয়দ মোঃ আলমগীর সভাপতি বাংলাদেশ আওয়ামী বাস্তহারা লীগ সহ গার্মেন্টস শ্রমিক নেতারা ও গার্মেন্টস শ্রমিকরা এবং গণমাধ্যম কর্মীরা।

এসময়ে গার্মেনটস শ্রমিক ফেডারেশনের নেতারা গভীর শ্রদ্ধা ভরে স্বরন করেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ ১৫ ই আগষ্টের শাহাদাত বরণকারীদের। সভাপতির বক্তব্যে মোঃ কফিল উদ্দিন বলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না আমরা আজ বাংলায় কথা বলতে পারতাম না। তিনি বলেন ১৯৭৫ এ ততকালীন বিএনপির নেতা জিয়ার মদদে খুনিরা এই কাজ করেছেন, তারই ধারাবাহিকতায় ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা করে আজকের আমাদের মানবিক মা বর্তমান সরকার জননেত্রী শেখ হাসিনাকে সহ তার পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিলেন। কিন্তুু তারা সফল হতে পারেন নাই। বাংলাদেশ শ্রমজীবী সমন্বয় পরিষদের এই সভাপতি ১৫ ই আগষ্টের শাহাদাত বরণকারী সকলের জন্য ও গাজীপুর মহানগরের মেয়র আলহাজ্ব এড. মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব এড. মোঃ আজমতউল্লাহ খান ও তার স্ত্রীর জন্য দোয়া করতে বলেন।

এই বিভাগের সর্বশেষ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button