১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ডের সাথে আওয়ামী লীগ নেতারাই জড়িত ছিল: ফখরুল

দেশরত্ন , ঢাকা- ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে আওয়ামী লীগ জড়িত বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, জিয়াউর রহমানের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করতে সরকার ‘নতুন গীত’ গাইছে। এই হত্যাকাণ্ড যারা ঘটিয়েছে, তারা সামরিক বাহিনীর লোক ছিল। তাদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের লোক যুক্ত ছিলেন।

সোমবার বিকালে লালমনিরহাট বিএনপির উদ্যোগে জেলার কভিড-১৯ হেল্প সেন্টার উদ্বোধন এবং করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদান উপলক্ষে আয়োজিত ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে অন্যদের দোষারোপ করে লাভ নেই। হত্যা, সন্ত্রাস ও প্রতারণার রাজনীতি বাদ দিয়ে সংশোধন হয়ে জনগণের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, করোনা মোকাবিলায় সরকার ব্যর্থ। জনগণের জীবন নিয়ে তারা ছিনিমিনি খেলছে। চিকিৎসা না পেয়ে হাসপাতালের বারান্দায় ও রাস্তায় মরছে মানুষ। সরকার ভোটে নির্বাচিত না হওয়ায় জনগণের প্রতি কোনো দায়বদ্ধতা নেই।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আপনারা দেখেছেন, ঢাকা থেকে গাদাগাদি করে হাজার হাজার মানুষ বাড়ি গেল। এখন হঠাৎ করেই ১ তারিখ থেকে কলকারখানা সরকার খুলে দিল। যানবাহন খুলল না। ফলে মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছে। পায়ে হেঁটে, রিকশায়, যে যেভাবে পারে কাজে যোগ দিতে ঢাকায় এসেছে। এরপরে তাদের বোধোদয় হয়েছে যে রাত্রিতে বলল, গতকাল দুপুর ১২টা পর্যন্ত গণপরিবহন খোলা থাকবে। তুঘলকও হেরে যায়। আমি এ জন্য কয়েক দিন আগে বলেছিলাম, আমার কাছে মনে হয় যাঁরা এসব সিদ্ধান্ত দেন, তাঁরা সব পাবনা হেমায়েতপুর থেকে এসেছেন।’

‘এটা তাদের সিদ্ধান্তহীনতা নয়, এটা পরিকল্পিত’ এমন মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, তারা তো বলেই যে বাংলাদেশে ৫ লাখ লোক ১০ লাখ লোক মরে গেলে কী হবে। এই হচ্ছে এই সরকার। যাদের জনগণের প্রতি কোনো দায়িত্ব নেই, যারা জনগণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছে রাজনৈতিকভাবে। এখন তারা মানুষের জীবন-জীবিকা নিয়ে বিশ্বাসঘাতকতা করছে।

নেতা-কর্মীদের জনগণের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপির নেতা-কর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করছেন। আমাদের জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন, আমাদের দলের স্বাস্থ্যবিষয়ক কমিটি তারা মানুষের সঙ্গে থেকে তাদের সহযোগিতা করছে। বিএনপি জনগণের পাশে আছে, পাশে দাঁড়াচ্ছে।’

এই বিভাগের সর্বশেষ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button