উপকূলীয় জেলাসমূহে সাগরগামী দুস্থ জেলে পরিবারের মধ্যে ইকোফিশ-২ প্রকল্পের উদ্যোগে পুষ্টি সমৃদ্ধ সামুদ্রিক শুটকি মাছ বিতরণ।

তৈয়্যবুর রহমান (তুহিন).চরফ্যাশন ভোলা প্রতিনিধি।

বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের চরফ্যাশন, রাঙ্গাবালি ও হাতিয়া উপজেলায় ইউএসএআইডির অর্থায়নে ‘ইকোফিশ-বাংলাদেশ প্রকল্পের উদ্যোগে সাগরগামী প্রকৃত ও দুস্থ জেলেদের পুষ্টি চাহিদা নিরূপণে সহায়তার লক্ষ্যে ৫০০ জেলে পরিবারের মধ্যে বিশুদ্ধ, বিষমুক্ত পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ সামুদ্রিক শুটকি মাছ বিতরণ সম্পন্ন করা হয়েছে। বুধবার (৪ আগস্ট ) সকাল ১০টায় ৩ উপজেলার “ইকোফিশ-২” প্রকল্পের আওতাধীন এলাকাসমূহে ওয়ার্ল্ডফিশ ও মৎস্য অধিদপ্তরের প্রয়োগে এবং সুশীলন ও আইইউসিএনএর সহায়তায় অত্র এলাকাসমূহের স্থানীয় ইউপি জনপ্রতিনিধিদের তত্বাবধানে জেলে পরিবারের মধ্যে শুটকি মাছ বিতরণ করা হয়। এ প্রসঙ্গে ইকোফিশ-২ প্রকল্পের টিম লিডার ও মৎস্য বিজ্ঞানি ড. আব্দুল ওহাব বলেন “ শুটকি মাছ একটি সুস্বাদু ও পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার যা শিশু-কিশোরদের শারীরিক বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। তাছাড়া গর্ভবতী মহিলাদের পুষ্টি চাহিদা সম্পন্নেও এটি খুবই কার্যকরী। জেলে পরিবারদের দৈনন্দিন পুষ্টি যোগানে তাই শুটকি মাছ হতে পারে একটি অন্যতম উপাদান”। উল্লেখ্য, ইউএসএআইডি ইকোফিশ-২ কার্যক্রমের আওতায় মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ, সাগরগামী জেলেদের জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন ও সামুদ্রিক বিপন্ন জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে বিজ্ঞানিরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তারই অংশ হিসেবে বিকল্প কর্মসংস্থান এর মাধ্যম অনুযায়ী জেলে পরিবারের বধূদের মধ্যে বিশুদ্ধ, স্বাস্থ্যসম্মত ও বিষমুক্ত সামুদ্রিক শুটকি মাছ প্রস্তুতির প্রশিক্ষণ ও উপকরণ প্রদান নিয়মিত ভাবে প্রদান করা হয়ে থাকে। সেই সাথে এবার পুষ্টি চাহিদা নিরূপণে সামুদ্রিক শুটকি মাছ প্রদান ও যুক্ত হলো যা জেলেদের পরিবারে খাদ্য গ্রহন ও চাহিদা যোগানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

এই বিভাগের সর্বশেষ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button