1. niloykhan1@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. mdfarukhossain096@gmail.com : faruk khan : faruk khan
  3. Seikhlekhun321@gmail.com : room news : room news
  4. shahinurislam6246@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন

সিরাজগঞ্জে একযুগ ধরে বাড়িতে নেই পানির সংযোগ! তবুও বিল ৭৪ হাজার টাকা

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩১ Time View

হাসান চৌধুরী, সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
একযুগ ধরে বাড়িতে নেই পানির সংযোগ তবুও ভৌতক বিল এসেছে ৭৪, হাজার ১ শত ২৫ টাকা, এমননি একটি অভিযোগ এসেছে সিরাজগঞ্জ পৌরসভার পানি সরবরাহ শাখার বিরুদ্ধে। অভিযোগটি করেছেন সিরাজগঞ্জ পৌর শহরের রহমতগঞ্জ ২নং গলির বাসিন্দা আশরাফুল আলমের স্ত্রী ছালমা সিদ্দিকা।
অভিযোগ সুত্রে জানাযায়, ২০১২ সালে ছালমা সিদ্দিকা অর্ধ ইঞ্চি ব্যাসার্ধের একটি পানির সংযোগের জন্য আবেদন করেন। পরবর্তীতে সিরাজগঞ্জ পৌরসভার নির্দেশে পানি সরবরাহ শাখার বিল নং ১৫১৯ পাচঁশত টাকার সংযোগ ফি দিয়েও বাড়িতে মেলেনি পানির সংযোগ। একের পর এক বাড়িতে পানির বিল আসায় ২০১৬ সালের ১৪ই নভেম্বর সিরাজগঞ্জ পৌরসভা বরাবর পানির লাইন চালুকরন সহ বিগত ভৌতিক বিল মওকুফের জন্য একটি আবেদন দাখিল করেন। কিন্তু সিরাজগঞ্জ পৌরসভার পানি সরবরাহ শাখার গাফিলতির কারনে ২০২২ সালে এসেও বন্ধ হয়নি ভৌতিক বিল। ২৯ শে মার্চ ২০২২ সালে পুনরায় নতুন করে একটি অভিযোগ দাখিল করে ভুক্তভোগী ছালমা সিদ্দিকা বলেন, একযুগ ধরে বাড়িতে নেই পানির সংযোগ একাধিকবার সিরাজগঞ্জ পৌরসভায় লিখিত ও মৌখিক অভিযোগ দাখিল করেও সিরাজগঞ্জ পানি সরবারহ শাখা থেকে পানির বিল আসা বন্ধ হয় নি। সর্ব শেষ ২৭/০১/ ২০২২ সালে পানির ভৌতিক বিল ৭৪ হাজার ১ শত ২৫ টাকা দেখে আমি হতভম্ব হয়ে সিরাজগঞ্জ পৌরসভার মেয়রের কাছে আবেদন জানাই আমার ভৌতক বিল মওকুফ সহ পানি সরবরাহ শাখার গাফললি কর্মকতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের। ভুক্তভোগী ছালমা সিদ্দিকার স্বামী আশরাফুল আলম বলেন, বাড়িতে নেই কোন পানির সংযোগ আবেদনের প্রেক্ষিতে সংযোগ ফি প্রদান করি। বাড়িতে পানির সংযোগ না দিয়ে শুধু মাত্র একটি পানির মিটার দিয়েই তারা দায়িত্ব শেষ করেন। একাধিকবার অভিযোগ করেও কাজ হয়নি। মেয়রের কাছে দাবি, খুব দ্রুত মনগড়া বিল মওকুফ সহ বিল ইস্যুকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের । এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ পৌরসভার মেয়র সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তা সাংবাদিকদের বলেন, পানির লাইন না থাকলে বিল পাঠানোর কোন সুযোগ নেই। একটি অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশরত্ন.কম
Develper By ITSadik.Xyz