1. niloykhan1@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  2. mdfarukhossain096@gmail.com : faruk khan : faruk khan
  3. Seikhlekhun321@gmail.com : room news : room news
  4. shahinurislam6246@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৭:৩৯ পূর্বাহ্ন

৩ যুবককে ‘পিটিয়ে হত্যা’র প্রতিবাদে সোনারগাঁওয়ে সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২০১ Time View

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:-

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে সোনারগাঁওয়ের বস্তল এলাকার দুই যুবকসহ তিনজনকে ‘ডাকাত আখ্যা দিয়ে পিটিয়ে হত্যা’র প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ,বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

গতকাল শুক্রবার সকাল সারে দশটায় এশিয়ান হাইওয়ে সড়কের বস্তল এলাকায় রাস্তায় এ বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেন তারা।

এ সময় বিক্ষোভকারীরা হত্যার ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে মানববন্ধন করেন। খবর পেয়ে তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আবু সাইদ ও জামপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মনির হোসেন সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিলেও বিক্ষোভকারীরা সড়ক ছেড়ে যাননি। তাদের দাবি, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিতে হবে এবং সঠিক বিচার করতে হবে। পরে বেলা সারে বারোটায় তারা সড়ক থেকে বিক্ষোভ শেষ করেন।

এলাকাবাসী জানায়, সোনারগাঁ উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের বস্তল এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে মফিজুল ইসলাম ও হাবিবুর রহমানের ছেলে জহিরুল ইসলাম আড়াইহাজার উপজেলার হাইজাদী ইউনিয়নের ইলমদী এলাকায় কারখানার শ্রমিক নিয়ে আসার জন্য গত বৃহস্পতিবার ভোরে বাসা থেকে লেগুনা নিয়ে বের হন। পরে স্বজনরা খবর পান তাদের ‘ডাকাত আখ্যা দিয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা’ করা হয়েছে।

ছেলে হত্যার বিচার চাইতে এসে নিহত জহিরুল ইসলামের বাবা হাবিবুর রহমান চোখের পানি মুছতে মুছতে বলেন, ‘আমার ছেলে ভোর ৪টায় গাড়ি নিয়ে বের হওয়ার পর আর বাড়ি ফেরেনি। পরে জানতে পারি তাকে ইলমদী এলাকায় মিথ্যা অপবাদ দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি করছি৷’

নিহত মফিজুলের আত্মীয় আসাদ মিয়া বলেন, ‘দুইজন যুবককে অপহরণের পর মিথ্যা অপবাদ দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ অঞ্চলে তাদের কোনো খারাপ রেকর্ড নেই। ৩ যুবককে ‘পিটিয়ে হত্যা’র প্রতিবাদে সোনারগাঁওয়ে সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন

জাহানারা আক্তার ঃ-নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:-নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে সোনারগাঁওয়ের বস্তল এলাকার দুই যুবকসহ তিনজনকে ‘ডাকাত আখ্যা দিয়ে পিটিয়ে হত্যা’র প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ,বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

শুক্রবার সকাল সারে দশটায় এশিয়ান হাইওয়ে সড়কের বস্তল এলাকায় রাস্তায় এ বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেন তারা।

এ সময় বিক্ষোভকারীরা হত্যার ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে মানববন্ধন করেন। খবর পেয়ে তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আবু সাইদ ও জামপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মনির হোসেন সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিলেও বিক্ষোভকারীরা সড়ক ছেড়ে যাননি। তাদের দাবি, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিতে হবে এবং সঠিক বিচার করতে হবে। পরে বেলা সারে বারোটায় তারা সড়ক থেকে বিক্ষোভ শেষ করেন।

এলাকাবাসী জানায়, সোনারগাঁ উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের বস্তল এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে মফিজুল ইসলাম ও হাবিবুর রহমানের ছেলে জহিরুল ইসলাম আড়াইহাজার উপজেলার হাইজাদী ইউনিয়নের ইলমদী এলাকায় কারখানার শ্রমিক নিয়ে আসার জন্য গত বৃহস্পতিবার ভোরে বাসা থেকে লেগুনা নিয়ে বের হন। পরে স্বজনরা খবর পান তাদের ‘ডাকাত আখ্যা দিয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা’ করা হয়েছে।

ছেলে হত্যার বিচার চাইতে এসে নিহত জহিরুল ইসলামের বাবা হাবিবুর রহমান চোখের পানি মুছতে মুছতে বলেন, ‘আমার ছেলে ভোর ৪টায় গাড়ি নিয়ে বের হওয়ার পর আর বাড়ি ফেরেনি। পরে জানতে পারি তাকে ইলমদী এলাকায় মিথ্যা অপবাদ দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি করছি৷’

নিহত মফিজুলের আত্মীয় আসাদ মিয়া বলেন, ‘দুইজন যুবককে অপহরণের পর মিথ্যা অপবাদ দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ অঞ্চলে তাদের কোনো খারাপ রেকর্ড নেই। বিষয়টি সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের বিচারের দাবি করছি।’

নিহত নবী হোসেনের বাবা মোসলেম মিয়ার অভিযোগ, আড়াইহাজার এলাকার মফিজের সঙ্গে শত্রুতার কারণে তিনজনকে ডাকাত বলে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ সঠিক তদন্ত করলেই বিষয়টি বেড়িয়ে আসবে।

তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আবু সাইদ বলেন, আমরা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে আসল রহস্য উদঘাটন করা হবে।

আড়াইহাজার থানার ওসি আনিচুর রহমান বলেন, ইলুমদী এলাকায় ডাকাত সন্দেহে তিনজনকে হত্যা করে রাস্তার পাশে ফেলে রাখা হয়েছিল। পুলিশ লাশ তিনটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। ঘটনাটি সঠিক তদন্তের মাধ্যমে আসল ঘটনা উদঘাটন করা হবে। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের বিচারের দাবি করছি।’

নিহত নবী হোসেনের বাবা মোসলেম মিয়ার অভিযোগ, আড়াইহাজার এলাকার মফিজের সঙ্গে শত্রুতার কারণে তিনজনকে ডাকাত বলে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ সঠিক তদন্ত করলেই বিষয়টি বেড়িয়ে আসবে।

তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আবু সাইদ বলেন, আমরা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে আসল রহস্য উদঘাটন করা হবে।

আড়াইহাজার থানার ওসি আনিচুর রহমান বলেন, ইলুমদী এলাকায় ডাকাত সন্দেহে তিনজনকে হত্যা করে রাস্তার পাশে ফেলে রাখা হয়েছিল। পুলিশ লাশ তিনটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। ঘটনাটি সঠিক তদন্তের মাধ্যমে আসল ঘটনা উদঘাটন করা হবে।
০১৭১১৮৪৩৪৫২

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক দেশরত্ন.কম
Develper By ITSadik.Xyz