রবিবার , ৩ জুলাই ২০২২ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. mail order girlfriend
  2. অপরাধ প্রতিদিন
  3. আন্তর্জাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. খেলাধুলা
  7. চাকরি
  8. দেশজুড়ে
  9. ধর্ম
  10. পদ্মা সেতু
  11. ফিচার
  12. বাংলাদেশ
  13. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  14. বিনোদন
  15. রাজধানী

পাঁচবিবি পৌর নির্বাচনে প্রার্থীর সমর্থককে জোরপূর্বক উঠিয়ে নেওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
জুলাই ৩, ২০২২ ৭:৩৭ অপরাহ্ণ

আব্দুল কাইয়ুম জয়পুরহাট :
জয়পুরহাটের পাঁচবিবি পৌরসভার নির্বাচনে আজ বৃহস্পতিবার প্রার্থীদের মনোনয়পত্র যাচাই-বাচাইয়ের সময় সতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সাবেকুন নাহার শিখার সমর্র্থকের স্বাক্ষর ভূয়া উল্লেখ করে মনোনয়ন পত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।
এঘটনায় সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় প্রার্থী সাবেকুন নাহার শিখা তার সমর্থক নার্গিস বেগম (৩৪) স্বাক্ষর বৈধ্য দাবী করে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। পাঁচবিবি পৌরসভার মেয়র প্রার্থী সাবেকুন নাহার শিখা তার দানেজপুরস্থ অফিসে সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, নির্বাচনে অংশ গ্রহনের জন্য প্রার্থীদের কাগজপত্র যাচাই বাছাইয়ের সময় আমার এক’শ জন সাধারণ ভোটারের সমর্থন সম্বলিত স্বাক্ষরের তালিকায় দুই সমর্থকের স্বাক্ষর ভূয়া বলে আমার মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়।
দুপুর ১২টার দিকে আমি আটাপুর ইউপি ভবনে সমর্থক নার্গিস বেগমসহ অবস্থান করি। এই সময় আমার প্রতিপক্ষ মেয়র প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিবের ৬-৭ জন লোক নার্গিসকে ভয়ভীতি দেখিয়ে উঠিয়ে তিনটি বাইকে যোগে তুলে নিয়ে যায়। যাবার সময় তারা আমাকে ও আটাপুর ইউপি চেয়ারম্যানকে গুলি করার হুমকি দিয়ে গেছে। এ বিষয়ে আমি থানায় একটি অভিযোগ করেছি। সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি আরো বলেন আমার সমর্থক নার্গিসকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে উল্টো তাকে দিয়ে আমার বিরুদ্ধে একটি অপহরণ মামলা করে আমাকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার পাঁয়তারা করা হচ্ছে।
বর্তমানে আমি ও আমার সমর্থকেরা জীবনের নিরাপত্তাহীনতা অনুভব করছি। এ বিষয়ে নৌকা মার্কার প্রার্থী আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান হাবিবের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বললে তিনি বলেন, “আমার কোন সমর্থক বা কর্মী আটাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে কাউকে তুলে নিয়ে আসেনি বরং শিখার লোকজনই তাকে আটকে রেখেছে”।

সর্বশেষ - অপরাধ প্রতিদিন