বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদকসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলার ঘটনায় প্রতিবাদ সমাবেশ

রিপোর্টার,ঢাকা জেলাঃ

বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম এবং বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান রিমনসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি করে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের ডাকে সারাদেশের ন্যায় সাভারের আশুলিয়া কমিটির পক্ষ থেকে জাতীয় স্মৃতিসৌধের সামনে বেলা ১২ টা থেকে ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সাভার কমিটির সমন্বয়ক এবং দৈনিক তৃতীয় মাত্রা প্রতিবেদক সোহেল রানার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও আশুলিয়া কমিটির সভাপতি এবং আজকের বিজনেস বাংলাদেশ প্রতিবেদক মোহাম্মদ ইয়াসিন ও সদস্য সচিব সাংবাদিক ইউসুফ আলী খান, বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টুয়েন্টিফোর টেলিভিশনের সাংবাদিক নাজমুল হুদা, আশুলিয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি দৈনিক সরেজমিন পত্রিকার সাংবাদিক এম এ হান্নান চৌধুরী, কাশিমপুর প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা (সাবেক) সভাপতি ও এশিয়ান টেলিভিশনের সাংবাদিক আমজাদ হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক মারুফ হোসেন, দৈনিক সময় ৫২ এর সম্পাদক ও প্রকাশক শম্ভুচন্দ্র সরকার, দৈনিক সকালের সময়ের ঢাকা জেলার ব্যুরো চিফ ইমাম হোসেন, দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার সাংবাদিক আহমেদ জীবন, বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ক্লাবের আশুলিয়া কমিটির সভাপতি সাংবাদিক বাবুল আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক আকরাম সরদার, সাপ্তাহিক বার্তা বাজার পত্রিকার সম্পাদক নুর হোসেন, দৈনিক সাম্প্রতিক দেশকাল পত্রিকার সাংবাদিক হাফিজুর রহমান,
দৈনিক বাক স্বাধীনতার সহকারী বার্তা সম্পাদক
মোঃসোহাগ হাওলাদার ও দৈনিক শ্রমিক পত্রিকার সাংবাদিক মোহাম্মদ আলী।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি এবং বাংলাদেশ প্রতিদিনের ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেলের প্রধান সাঈদুর রহমান রিমন ও বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক সম্পাদক নঈম নিজামের বিরুদ্ধে হুইপ সামশুল হক চৌধুরী কর্তৃক ৫০০ কোটি টাকার মানহানী মামলা দায়েরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

শুভেচ্ছা বক্তব্যে বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টুয়েন্টিফোর টেলিভেশনের সাংবাদিক নাজমুল হুদা বলেন, সব সময় কণ্ঠরোধ করতে একটি বিশেষ শ্রেণীর মানুষ ভূমিকা পালন করে থাকে। হুইপের দুর্নীতির নিউজ প্রকাশ করায় দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম মিডিয়া গ্রুপ ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া লিমিটেড আক্রান্ত হয়েছে। এটি সারা বাংলাদেশের সাংবাদিকদের মনে রক্তক্ষরণ হয়েছে। ষড়যন্ত্রমূলক এ মামলাটি আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে প্রত্যাহার করা না হলে উপযুক্ত জবাব দিবে সাংবাদিক সমাজ।

সভাপতির বক্তব্যে মোহাম্মদ ইয়াসিন বলেন, সাংবাদিকদের হয়রানি বন্ধে সবসময় সোচ্চার ভূমিকা রাখেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলট ও সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর। এই মামলা হওয়ার পর পরেই সংগঠনের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে বিবৃতির মাধ্যমে মামলাটি প্রত্যাহারের দাবি জানান। অন্যথায় এই মিথ্যা এবং সাজানো মামলাটি প্রত্যাহারের দাবিতে দেশব্যাপী প্রতিবাদ সমাবেশেরও হুশিয়ারী দেওয়া হয়। কিন্তূ মামলাটি প্রত্যাহার করা হয়নি। যার প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় নির্দেশনায় এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ। দ্রুত সময়ে ষড়যন্ত্র মূলক এ মামলাটি প্রত্যাহার না করা হলে কেন্দ্র থেকে এর থেকেও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করলে সাভার ও আশুলিয়া কমিটি সংহতি প্রকাশ করবে।

দৈনিক সময় ৫২ পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক তার বক্তব্যে বলেন, আমরা স্পষ্ট ভাষায় জানাতে চাই সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে কন্ঠরোধ করা যাবেনা। সাংবাদিকদের নামে মামলা-হামলার বিরুদ্ধে দেশের সাংবাদিকরা স্বোচ্চার রয়েছেন। আগামীতেও সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিতে জাতির বিবেক সাংবাদিক সমাজ বদ্ধপরিকর।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে সংহতি প্রকাশ করে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র নেতা আসাদুল ইসলাম মুকুল, ফারুক রুহানি,মোহাম্মদ ফরহাদ হোসেন,আব্দুল হান্নান প্রমুখ।

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাকা জেলা উত্তরের সাবেক সভাপতি আসাদুল ইসলাম মুকুল তার বক্তব্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও হুইপ শামসুল হক চৌধুরী কতৃক বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদকসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলার সমালোচনা করেন। অবিলম্বে এই মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ১৮ আগস্ট (বুধবার) পটিয়ার যুগ্ম জেলা জজ আদালতে এ মামলা করেন হুইপ শামসুল হক চৌধুরী। তাঁর পক্ষে এ মামলা রুজু করেন পটিয়া আইনজীবী সমিতির সভাপতি সিনিয়র অ্যাডভোকেট দীপক কুমার শীল। মামলায় বিবাদী করা হয়েছে- বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান শাহআলম, ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর, বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টোয়েন্টিফোর টিভির সম্পাদক নঈম নিজাম, কালের কণ্ঠের সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, ডেইলী সান এর সম্পাদক ইনামুল হক চৌধুরী, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের ক্রাইম ইনভেষ্টিগেশন সেলের প্রধান সাঈদুর রহমান রিমন ও রিয়াজ হায়দার, কালের কণ্ঠের এস এম রানা, মোহাম্মদ সেলিম, এবং বাংলানিউজের সম্পাদক জুয়েল মাজহারকে।

এই বিভাগের সর্বশেষ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button